সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪
৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সর্বজনীন পেনশন : সর্বাত্মক কর্মবিরতিতে যাচ্ছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: শুক্রবার, জুন ২৮, ২০২৪

সর্বজনীন পেনশন : সর্বাত্মক কর্মবিরতিতে যাচ্ছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা
স্বপ্নিল হকঃ
সর্বজনীন পেনশনের ‘প্রত্যয়’ স্কিমের প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহার, সুপার গ্রেডে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের অন্তর্ভুক্তি এবং শিক্ষকদের জন্য স্বতন্ত্র বেতন স্কেল চালুর দাবিতে বৃহস্পতিবার টানা তৃতীয় দিনের মতো অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা। তবে চলমান পরীক্ষাগুলো কর্মবিরতির আওতার বাইরে ছিল। একই ভাবে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়েও একই ধরনের কর্মসূচি পালন করেছেন শিক্ষকেরা।
বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের উদ্যোগে এই কর্মসূচি পালিত হচ্ছে। দাবি আদায়ে এখন পর্যন্ত কোনো আশ্বাস না পাওয়ায় আগামী রোববার পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালনের ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষকেরা। তাতেও কার্যকর পদক্ষেপ না নেওয়া হলে আগামী ১ জুলাই থেকে সর্বাত্মক কর্মবিরতিতে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তাঁরা। ওই দিন থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস-পরীক্ষাসহ সব দাপ্তরিক কার্যক্রমও বন্ধ থাকবে। এর ফলে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় অচলাবস্থা তৈরি হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।


গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল আটটা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা। দুপুরে কলাভবনের মূল ফটকে অবস্থান নিয়ে সমাবেশও করেন তাঁরা।


জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি জানিয়েছেন, অর্থ মন্ত্রণালয়ের জারি করা পেনশন সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপনকে ‘বৈষম্যমূলক’ আখ্যা দিয়ে এটি প্রত্যাহারসহ তিন দাবিতে টানা তৃতীয় দিনের মতো আজ অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করেন শিক্ষকেরা।


বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের পূর্বঘোষিত তিন দিনের কর্মসূচির সঙ্গে সংহতি জানিয়ে সকাল থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত শিক্ষকেরা এই কর্মবিরতি পালন করেন। এরপর এক ঘণ্টা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান অনুষদ ভবনের নিচে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির আয়োজনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন তাঁরা।


দাবি আদায় না হলে ১ জুলাই থেকে সর্বাত্মক কর্মবিরতি পালন করা হবে বলে অবস্থান কর্মসূচিতে ঘোষণা দেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক মোতাহার হোসেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের দাবি মেনে নিয়ে প্রত্যয় স্কিম প্রত্যাহার ও জারি করা প্রজ্ঞাপন তুলে না নেওয়া পর্যন্ত ক্লাসে ফিরব না। কোনো শিক্ষক তাঁদের দায়িত্ব পালন করবেন না।’
গত ১৩ মার্চ অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে প্রত্যয় স্কিমের প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকেই এর বিরুদ্ধে সরব হয় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সংগঠনগুলোর মোর্চা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন। কিছু কর্মসূচি পালনের পর ৪ জুন অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করেন শিক্ষকেরা। এরপরও দাবির বিষয়ে কার্যকর কোনো পদক্ষেপ না দেখে ৪ জুন ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী, গত মঙ্গলবার থেকে অর্ধদিবস কর্মবিরতি শুরু করেছেন তাঁরা। এই আন্দোলনের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগপন্থী শিক্ষক নেতারা থাকলেও কর্মসূচিতে বিএনপিপন্থী শিক্ষকদেরও অংশ গ্রহণ রয়েছে।
0 Comments