মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪
৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কয়রার জনপ্রিয় নেতা শফি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: শুক্রবার, মে ২৪, ২০২৪

কয়রার জনপ্রিয় নেতা শফি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন
রফিকুল ইসলাম টুকু /মনিরুজ্জামান মনিঃ
কয়রা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জনপ্রিয় নেতা এবং আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে সম্ভাব্য উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী শফিকুল ইসলাম শফি শারীরিক অসুস্থতার কারণে নির্বাচন থেকে সরে গেলেন। তিনি বর্তমানে খুলনা সিটি মেডিকেল  হসপিটালে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় ভর্তি রয়েছেন। এই খবরে বিপুল  পরিমান সমর্থক গোষ্ঠী হতাশ হয়ে পড়েছেন। জনপ্রিয় এই নেতা তার ফেসবুক আইডিতে যা লিখেছেন হুবহু তা তুলে ধরা হলো। 

"" আমি আপনাদের সেবক হয়ে থাকতে চাই। আমি ক্ষমতার পাগল নই,আমি আপনাদের ভালবাসার পাগল।আমার নিকট ক্ষমতা বড় নয়- (বড়  জীবন) ও আপনাদের ভালবাসা বড়।হাসপাতালের কেবিনে শুয়ে চিন্তা করে দেখলাম,প্রচন্ড অসুস্থ শরীর নিয়ে অতীতের মত নিরবচ্ছিন্ন সেবা দেওয়া আমার পক্ষে সম্ভব হবেনা। তাই নির্বাচনের ইচ্ছা থাকা স্বত্বেও অতীব দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি যে, অসুস্থতার কারণে আমি আসন্ন ২৯ মে ২০২৪ তারিখের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের সকল প্রকার কার্যক্রম হতে নিজেকে প্রত্যাহার করে নিলাম।আপনারা ভূল বুঝবেন না,আমি কারো ভয়ভীতি বা হুমকিতে এই সিদ্ধান্ত গ্রহন করি নাই। অসুস্থতার জন্যই আমার এই সিদ্ধান্ত।আমার সুস্থতার জন্য দোয়া করবেন।
প্রিয় নেতা- কর্মীবৃন্দ
আপনারা মনোভাব হারাবেন না।ভেঙে পড়বেন না। বিশৃঙ্খলা করবেন না, ধৈর্য ধারণ করবেন ও শান্ত থাকবেন। আপনারা ছিলেন আমার চলার সাথী।আমার আশা ভরসা ও শক্তির উৎস। আমি সবসময় আপনাদের সুখে দূখে বন্ধুর মত পাশে ছিলাম, এখনো আছি, ভবিষ্যতেও থাকবো ইনশাআল্লাহ।
আমি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একজন নিবেদিত সৈনিক হিসেবে আপনাদের পাশে থাকবো।
আমি আমার ছোট ভাই এস এম বাহারুল ইসলাম, চেয়ারম্যান কয়রা ইউনিয়ন পরিষদ -এর মাধ্যমে বিষয়টি
আপনাদের অবগত করলাম ।
জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।
0 Comments